অর্থমন্ত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক নেতাদের হুঁশিয়ারি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » লিড নিউজ

অর্থমন্ত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক নেতাদের হুঁশিয়ারি

শিক্ষকদের স্বতন্ত্র বেতন স্কেল ঘোষণা ও প্রস্তাবিত ৮ম জাতীয় বেতন কাঠামো পুনঃনির্ধারণসহ ৪ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। দাবি আদায়ে আজ বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতকে স্মরকলিপিও দিয়েছে ফেডারেশন। একইসঙ্গ শিক্ষক নেতারা অর্থমন্ত্রীকে হুঁশিয়ার করে বলেছেন, দাবি মানা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত

২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি নেতারা দুপুরে সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে  তাদের স্মারকলিপি দেন। এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকও হয় তাদের।

বৈঠকে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের মহাসচিব অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন, প্রস্তাবিত ৮ম বেতন কাঠামোতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের বেতন ন্যূনতম ২ ধাপ নামিয়ে আনা হয়েছে; যা বাস্তবায়ন হলে শিক্ষকদের অধিকার ক্ষুণ্ন ও অবমাননা করা হবে।

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বেতন কাঠামোর প্রতিটি ধাপে প্রায় দ্বিগুণ বেতন বাড়ানো হলেও শিক্ষকদের ক্ষেত্রে বৈষম্য করা হয়েছে। এটা শিক্ষক সমাজ মেনে নেবে না।

মাসুদ কামাল অভিযোগ করে বলেন,  প্রস্তাবিত বেতন কাঠামোতে সিনিয়র সচিব ও পদায়িত সচিব নামে বিশেষ ধাপ সৃষ্টি করে বেতন-ভাতার ক্ষেত্রে প্রশ্নবোধক এক নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হয়েছে। ৭ম বেতন কাঠামো অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিলেকশন গ্রেড অধ্যাপক, সচিব-সিনিয়র সচিবের সমান বেতন পান। কিন্তু প্রস্তাবিত কাঠামোতে সিলেকশন গ্রেড অধ্যাপকদের দুই ধাপ নিচে নামিয়ে আনা হয়েছে এবং সিলেকশন গ্রেড বাদ দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের ৪ দফা দাবি হলো- অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রবর্তন করা, শিক্ষকদের জন্য নতুন বেতন কাঠামো প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের মধ্যবর্তী সময়ে ঘোষিত বেতন কাঠামো পুনঃনির্ধারণ করে বৈষম্য দূরীকরণপূর্বক সিলেকশন গ্রেড অধ্যাপকদের বেতন- ভাতা সিনিয়র সচিবদের সমতুল্য করা, অধ্যাপকদের বেতন- ভাতা  সচিবদের সমতুল্য করা, রাষ্ট্রীয় ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্স এ পদমর্যাদাগত অবস্থান নিশ্চিত করা এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সরকারি কর্মকর্তাদের অনুরূপ গাড়ি ও অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিত করা।

স্বতন্ত্র বেতন স্কেল নিয়ে শিক্ষকদের দাবির বিষয়ে বৈঠকে নিরব ভূমিকা পালন করেন অর্থমন্ত্রী। তবে প্রস্তাবিত ৮ম জাতীয় বেতন কাঠামোর ১৬টি গ্রেড নয়; তা আগের ২০টিই থাকবে বলে ইঙ্গিত দেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, পে-কমিশনের সুপারিশের ওপর সচিব কমিটি সুপারিশ করে অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। আমরা তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করে থাকি।

তিনি বলেন, পে-কমিশন স্থায়ী করার কথা ভাবছি। ৫ বছর পর নয়, পে-কমিশন সবসময় কাজ করবে।

অর্থসূচক/এএ

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ