ভারতে ম্যাগি নিষিদ্ধের ধাক্কা ময়দা-মশলায়
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

ভারতে ম্যাগি নিষিদ্ধের ধাক্কা ময়দা-মশলায়

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ভারতজুড়ে ম্যাগি নিষিদ্ধ করায় মুখ থুবড়ে পড়েছে পণ্যটির সাথে সংশ্লিষ্ট অন্য কারখানা। বিশেষ করে এর প্রভাব পড়েছে দেশটির মশলা ও ময়দার কারখানায়। বন্ধ হয়ে যেতে বসেছে অনেক কারখানাই। ফলে কাজ হারিয়েছে অসংখ্য কর্মী।

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

সোমবার এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে ভারতের সংবাদ মাধ্যম এবিপি আনন্দ জানিয়েছে, যে সমস্ত সংস্থা নেসলের ওপর নির্ভরশীল ছিল তারা এটাও জানে না যে বাতিল হয়ে যাওয়া অর্ডারের জন্য তারা আদও টাকা পাবে কিনা, ভবিষ্যতেও নেসলে তাদের সঙ্গে আর ব্যবসা করবে কিনা? এই সমস্ত নির্ভরশীল শিল্পের প্রায় প্রতি সপ্তাহে দশ কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে।

পরাশ নামের একটি মশলার প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, তাদের প্রায় ৪০ শতাংশ আয় আসতো নেসলে থেকে। বর্তমান পরিস্থিতিতে এরমধ্যেই তারা তাদের সংস্থার প্রায় ৩০০ অস্থায়ী কর্মীকে ছাঁটাই করেছে। গত প্রায় তিন দশক ধরে নেসলের সঙ্গে ব্যবসা করছিল তারা। ম্যাগি নিষিদ্ধ করায় এখন তাদের সমস্ত উৎপাদন প্ল্যান্টই বন্ধ করে দিতে হয়েছে।

একই অবস্থা ময়দার মিলেও। প্রায় ৭০-৮০টি ময়দার মিল বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক সংস্থার সপ্তাহে প্রায় পনেরো কোটি টাকার মতো ক্ষতি হচ্ছে।

শুধু নেসলে নয়, সম্প্রতি বাজার থেকে হিন্দুস্তান ইউনিলিভারও তাঁদের নর ন্যুডলস বাজার থেকে তুলে নেয়। ধাক্কা খেয়েছে প্যাকেজিং শিল্পও। কাজ হারিয়েছে অসংখ্য কর্মী। প্রশ্নের মুখে বহু সংস্থার ভবিষ্যত।

বিশেষজ্ঞদের মতে, নেসলে হয়তো ফের বাজারে ম্যাগি ফিরিয়ে আনবে, তবে মানুষের হারানো বিশ্বাস কতটা ফিরিয়ে আনা এরপর সম্ভব, সেবিষয় দ্বিধায় রয়েছে বিশেষজ্ঞমহল।

এই বিভাগের আরো সংবাদ