ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ২০ কিলোমিটারে যানজট
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » সর্বশেষ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ২০ কিলোমিটারে যানজট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডে প্রায় ২০ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল রোববার গভীর রাতে থেকে যানজটে আটকা পড়েছে শতাধিক গাড়ি। আজ সোমবার সকাল ১১টায় এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত অব্যাহত ছিল যানজট। চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা।

ট্রাফিক জ্যাম

ছবি: ফাইল ছবি

হাইওয়ে পুলিশ জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সংস্কার কাজের জন্য সম্প্রসারিত চার লেনের মধ্যে সীতাকুণ্ডে ২ লেন বন্ধ করে দিয়েছে সড়ক ও জনপদ বিভাগ (সওজ)। আর এতেই যানজটে আটকা পড়েছে শতাধিক গাড়ি।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল রোববার দিবাগত রাত ১টার দিকে সীতাকুণ্ডের ছোট দারোগাহাট ও পন্থিছিলা বটতল এলাকায় ২টি গাড়ি নষ্ট হয়। গাড়িগুলো রাস্তা থেকে সরিয়ে নিতে প্রচুর সময় ব্যয় হয়েছে। অন্যদিকে সড়ক সংস্কারের কাজে সম্প্রসারিত ৪ লেনের ২টিতে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। এসময় আটকা পড়া গাড়িগুলো এলোমেলোভাবে চলতে শুরু করে; এতেই যানজট বাড়ে।

তারা জানান, অন্তত ২০ কিলোমিটার সড়কে যানজট রয়েছে। যানজটে আটকা পড়া গাড়িগুলো থেমে থেমে চলছে। যানজট নিরসনে কুমিরা হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি বারআউলিয়া হাইওয়ে থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে কাজ করছে।

যানজটে আটকে পড়া ট্রাকচালক হারুন বলেন, বেশ কয়েক ঘণ্টা ধরে এখানেই বসে আছি। এক ইঞ্চিও সামনে যেতে পারছি না। সামনে বা পিছনে কোনো দুর্ঘটনা হয়েছে কি না- তা এখনও জানতে পারিনি। এদিক থেকে কোনো গাড়ি যেতে পারছে না। আবার বিপরীত দিক থেকেও কোনো গাড়ি চট্টগ্রামের দিকে যেতে দেখছি না। কবে যানজট ছাড়বে- তাও বুঝতে পারছি না।

কুমিরা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সার্জেন্ট জিল্লুর রহিম বলেন, মহাসড়কের সম্প্রসারিত ৪ লেনের ২ লেন মাটি দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখন একটি গাড়ি ধীরে চললেই যানজট লেগে যায়। বৃষ্টির কারণে হাইওয়ে পুলিশের কাজে সমস্যা হচ্ছে। যানজট দূর করার চেষ্টা চলছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ