‘বাবা-মার একই ভালোবাসা পেলে, ভাঙ্গা ঘর হতে পারে না’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

‘বাবা-মার একই ভালোবাসা পেলে, ভাঙ্গা ঘর হতে পারে না’

বিবাহ বিচ্ছেদের পরও একসঙ্গে থাকছে বাবা-মা ;বন্ধু হয়ে

বিবাহ বিচ্ছেদের পরও একসঙ্গে থাকছে বাবা-মা ;বন্ধু হয়ে

বিবাহবিচ্ছেদ হলেই পরিবারের সব সুখ শেষ হয়ে যায় না বলে বিশ্বাস করে ইন্দোনেশিয়ার ৯ বছরের বালক আজকা

ইন্টারনেটে এক ভিডিও চিত্রে সে জানিয়েছে, তার বাবা-মা একসাথে না থাকলেও কোনো আক্ষেপ নেই। আর আজকার স্বস্তি- তার বাবা-মা আর ঝগড়া করে না।

আজকা জানিয়েছে, বিচ্ছেদ হলেও তার বাবা-মা কাছাকাছি থাকে এবং তারা বন্ধু। তারা মাঝে মধ্যে তাকে নিয়ে বিদেশে ছুটি কাটাতেও যায়। তাই ‘দুজনের কাছ থেকে একইরকম ভালোবাসা পেলে, সেটা ভাঙ্গা ঘর হতে পারেনা বলে বিশ্বাস আজকার।

ইন্দোনেশিয়ার জনপ্রিয় একজন টিভি ব্যক্তিত্ব ডেডি কোরবুজিয়েরের সন্তান আজকা। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, যখন তিনি এবং তার স্ত্রী আজকাকে তাদের বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তের কথা জানান, তখন ছেলের প্রতিক্রিয়া দেখে তারা অবাক হয়েছিলেন। “আজকার প্রথম প্রশ্ন ছিল — আমি কার সাথে যাবো।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা তাকে বলি- যে বাড়িতে সে আছে, সেখানেই থাকবে সে। তার উত্তর ছিল -কোনও সমস্যা নেই।” আর তার বাড়ির নাম দেয়া হয়েছে আজকা’র বাড়ি।

মি কোরবুজিয়ে বলেন, অনেক মানুষ তাকে প্রশ্ন করে বাবা-মার মধ্যে বিচ্ছেদে আজকা কষ্ট পাচ্ছে কি না। অনলাইনে সে এই প্রশ্নের উত্তরও দিতে চেয়েছিল।

ইন্দোনেশীয় ওই বালকের ভিডিও চিত্রটি ইউটিউবে সাড়ে ৩ লক্ষ বার দেখা হয়েছে। সারা পৃথিবী থেকে মানুষ আজকাকে প্রশংসা করে মন্তব্য করেছে।

একটি মন্তব্য এমন ছিল  “এরকম উৎসাহব্যঞ্জক ভিডিওর জন্য ধন্যবাদ। আমি এটি আমার মা এবং ছোট বোনকে দেখিয়েছি। আমাদের চোখে পানি চলে এসেছিলো।”

এছাড়া অন্যরা বাবা-মার বিচ্ছেদের পর তাদের অভিজ্ঞতার কথা লিখেছে। একজন লিখেছে, ” বাবা-মার বিচ্ছেদ হলেও আগের চেয়ে আনন্দে থাকা সম্ভব। অল্প বয়সেই এরকম মনে হয়। যা হয়েছে ভালো হয়েছে।”

এই ভিডিওটি প্রকাশিত হওয়ার পর সেলিব্রেটি হয়ে গেছে ৯ বছরের ইন্দোনেশীয় বালক আজকা। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে তার ফলোয়ার সংখ্যা ৬০,০০০।

সূত্র : বিবিসি

এআরএস/

এই বিভাগের আরো সংবাদ