সম্পূরক শুল্কে রবির উদ্বেগ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টেক

সম্পূরক শুল্কে রবির উদ্বেগ

ROBI-logo

রবি’র লোগো

আগামি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে দেশের অন্যতম শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর। মোবাইল ফোনের সিমের উপর বিদ্যমান কর কমানোর বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছে রবি। অন্যদিকে মোবাইল সেবার উপর সম্পূরক শুল্ক আরোপের প্রস্তাবে উদ্বেগ জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইকরাম কবীর এক বিবৃতিতে বাজেট সম্পর্কে তাদের প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেন।

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট উপস্থাপন করেন আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এতে তিনি সিম কার্ড ইস্যু তথা নতুন সংযোগের ক্ষেত্রে করের পরিমাণ বিদ্যমান ৩০০ টাকা থেকে ১০০ টাকায় নামিয়ে আনার প্রস্তাব করেন। তবে সিম কার্ড পুনঃইস্যুর ক্ষেত্রে ১০০ টাকা কর অব্যাহত রাখার কথা বলেন।  একইসঙ্গে তিনি মোবাইলের সব ধরনের সেবার উপর (ভয়েস কল ও ডাটা স্থানান্তর বা ইন্টারনেট) ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করেন।

সিম ট্যাক্স কমানোর প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে রবি বলেছে, এটি বাংলাদেশে মোবাইল সংযোগের বিস্তার ঘটানোর ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। যদিও তারা আশা করেছিলেন, সিম ট্যাক্স পুরোপুরি মওকুফ করে দেওয়া হবে। তবে সিম কর কমানোর সিদ্ধান্ত নিশ্চিতভাবেই সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের উদ্যোগ এবং পদক্ষেপসমূহকে তরান্বিত করবে।

সম্পূরক করের প্রস্তাবে উদ্বেগ প্রকাশ করে রবি বলেছে, মোবাইল সেবার ওপর ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ হলে তা গ্রাহকদের জন্যে বাড়তি চাপ হিসাবে দেখা দেবে। এর ফলে এই খাতের সামগ্রিক রাজস্ব কমে আসার আশঙ্কা রয়েছে।

এছাড়া রবি টেলিকম খাতের কর্পোরেট ট্যাক্সের বিষয় পুনর্বিবেচনার অনুরোধ জানিয়েছে। রবি বলেছে, কর্পোরেট ট্যাক্স কমালে নিশ্চিতভাবেই এই খাতে আরও বেশি প্রত্যক্ষ দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ উৎসাহিত হবে।

উল্লেখ, বর্তমানে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মোবাইল ফোন অপারেটরকে ৪০ শতাংশ হারে কর দিতে হয়।আর তালিকাবহির্ভুত অপারেটরকে কর দিতে হয় ৪৫ শতাংশ হারে। আগামি অর্থবছরের বাজেটেও এ কর হার বহাল রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ