‘২৪ শতাংশ জনগোষ্ঠী দারিদ্রসীমার নিচে’
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

‘২৪ শতাংশ জনগোষ্ঠী দারিদ্রসীমার নিচে’

Senior University Photographer

ছবি: সংগৃহীত

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত জানিয়েছেন, বর্তমানে ২৪ শতাংশ জনগোষ্ঠী দারিদ্রসীমার নিচে আছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেট বক্তৃতায় তিনি একথা জানান।
অর্থমন্ত্রী বলেন, জাতি হিসেবে জন্মলগ্ন থেকেই আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত লক্ষ্য হচ্ছে দারিদ্র দূরীকরণ। মুক্তিযুদ্ধে যেভাবে আমাদের জাতীয় সম্পদ ও দক্ষ জনশক্তি পাকিস্তানি ধ্বংসলীলার শিকার হয় এবং যেভাবে আমাদের দেশে জ্বালাও-পোড়াও ও লুটতরাজ চলে তাতে দেশের সত্তর শতাংশের বেশি জনগণ দারিদ্র্যসীমার নিচে চলে যায়। দারিদ্র দূরীকরণ এখনও আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত লক্ষ্য। এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য আমরা ব্যাপকভাবে আমাদের দেশে মানুষের চাহিদা বাড়াতে এবং তা মেটাতে সচেষ্ট আছি।
গত দেড় থেকে দুই দশক ধরে আমাদের প্রবৃদ্ধির হার ৬ শতাংশের কিছু বেশি- একথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের অকল্পনীয় কৃতিত্ব হলো যে, একদিকে যেমন আমরা প্রবৃদ্ধির হার বাড়িয়েছি, অন্যদিকে তেমনি বৈষম্যকেও বাড়তে দিইনি। এই কৌশলের ফলেই আমরা দারিদ্র দূরীকরণে যথেষ্ট সাফল্য অর্জন করেছি। ৭০ শতাংশ দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পরিবর্তে বর্তমানে ২৪ শতাংশ জনগোষ্ঠী দারিদ্রসীমার নিচে আছে।
অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা আমাদের স্বপ্নের দিগন্ত আরো প্রসারিত করেছি। ছয় শতাংশের বৃত্ত ভেঙ্গে উচ্চ প্রবৃদ্ধির সোপানে আরোহণ এবং মাথাপিছু আয়ের ধারাবাহিক উত্তরণ ঘটিয়ে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশের কাতারে সামিল হওয়া আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য। তবে, এর জন্য প্রয়োজন রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা। আমি আশা করবো, জনগণের জীবনমানের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় দেশপ্রেমিক সকল রাজনৈতিক দল স্বতঃস্ফূর্ত সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবে, বিরত থাকবে সহিংসতা ও নাশকতার মত সকল জনবিরোধী কর্মকাণ্ড থেকে। দায়িত্বপূর্ণ আচার-আচরণ এবং পরষ্পরের প্রতি সহনশীলতার মাধ্যমে প্রসার ঘটাবে গণতান্ত্রিক সংস্কৃতির, নিশ্চিত করবে বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর কল্যাণ-যাঁদের শ্রমে-ঘামে ক্রমশ মজবুত হয়ে উঠছে আমাদের অর্থনীতি।
এই বিভাগের আরো সংবাদ