'সামাজিক সুরক্ষা আরও শক্তিশালী করতে সজাগ সরকার'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » বাজেট

‘সামাজিক সুরক্ষা আরও শক্তিশালী করতে সজাগ সরকার’

old_women২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তা ও কল্যাণ খাতে বরাদ্দের পরিমাণ বেড়েছে। সামাজিক সুরক্ষা আরও শক্তিশালী করতে এই ১৬ হাজার ৯৫৪ কোটি টাকার বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

গত অর্থবছরের ১৫ হাজার ৫১০ কোটি টাকার বিপরীতে এবারের বাজেটে বরাদ্দ বেড়েছে ১ হাজার ৪৪৪ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত সামাজিক সুরক্ষায় এই বাজেট প্র্র্রস্তাব করেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, দারিদ্র নিরসন ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আমরা সামাজিক সুরক্ষাভুক্ত বিভিন্ন ভাতার হার ও পরিধি সম্প্রসারণ করেছি। একই সাথে দ্বৈততা পরিহারে নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন কার্যক্রম।

তিনি বলেন, বৈষম্যের শিকার দলিত, হরিজন, বেদে এবং হিজড়া সম্প্রদায়কে সম্পৃক্ত করা হচ্ছে সমাজের মূলধারার সঙ্গে। পল্লি এলাকার দারিদ্র হ্রাসে পরিচালনা করা হচ্ছে সুদমুক্ত ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম।

অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর প্রতিবন্ধিতার ধরন চিহ্নিতকরণ ও মাত্রা নিরূপণপূর্বক লক্ষ্যভিত্তিক কার্যক্রম গ্রহণের জন্য আমরা দেশব্যাপী প্রতিবন্ধিতা শনাক্তকরণ জরিপ শুরু করেছিলাম। মার্চ ২০১৫ পর্যন্ত মোট ১৮ লক্ষ ৩ হাজার ৪৫৬ জন প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে জরিপের আওতায় আনা হয়েছে। প্রতিবন্ধিতা শনাক্ত ও মাত্রা নিরূপণ করা হয়েছে ১৪ লক্ষ ৫৫ হাজার প্রতিবন্ধীর। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের যাবতীয় তথ্য সংরক্ষণের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে ২ লক্ষ ২৭ হাজার প্রতিবন্ধী ব্যক্তির তথ্য তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আশা করছি, জুন ২০১৫ নাগাদ এই কাজ শেষ হবে।

সরকারের গত মেয়াদের ধারাবাহিকতায় এবারও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে সামাজিক নিরাপত্তা খাতে বাজেট গুরুত্ব পেয়েছে। আসন্ন ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় উপকারভোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

সামাজিক নিরাপত্তা ও কল্যাণ খাত সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে গঠিত। এখাতের ১৬ হাজার ৯৫৪ কোটি টাকার মধ্যে  সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে ৩ হাজার ২৫৭ কোটি টাকা, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে ১ হাজার ৬৭৯ কোটি টাকা, খাদ্য মন্ত্রণালয়ে ১ হাজার ৮৯৯ কোটি টাকা, দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ে ৭ হাজার ৪৪০ কোটি টাকার প্রস্তাব করা হয়েছে।

সামাজিক নিরাপত্তা ও কল্যাণ খাতে শিক্ষা উপবৃত্তি, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপবৃত্তি, অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়স্ক ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তাদের ভাতা, একটি বাড়ি একটি খামার, আশ্রয়ণ প্রকল্প, কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি, টি আর, জি আর, দুস্থ মাতাদের জন্য খাদ্য সহায়তা (ভিজিডি) ও চর জীবিকায়নসহ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচি এবারও থাকছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ