নিরাপদ মনে হলেই ভারত ফিরবেন তসলিমা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » টুকিটাকি

নিরাপদ মনে হলেই ভারত ফিরবেন তসলিমা

Taslima-Nasreen

বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। ফাইল ছবি

মৌলবাদীদের হুমকির প্রেক্ষাপটে যুক্তরাষ্ট্রের একটি এনজিও বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনকে নিউ ইয়র্ক নিয়ে গেলেও ভারতে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন তিনি। আজ বুধবার তসলিমা জানিয়েছেন, তিনি স্থায়ীভাবে ভারত ছাড়েননি; নিরাপদ মনে করলেই ভারত ফিরবেন তিনি।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কভিত্তিক এনজিও সেন্টার ফর ইনকয়ারি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ভারতীয় উপমহাদেশের মৌলবাদীদের হত্যার হুমকির প্রেক্ষাপটে তসলিমা নাসরিনকে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি থেকে নিউ ইয়র্ক নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মুক্তচিন্তার কর্মী তসলিমার সহায়তায় একটি জরুরি তহবিল গঠন করা হয়েছে; যার জীবন বাংলাদেশের মতো দেশের আল কায়েদার সাথে সম্পর্কিত ইসলামী উগ্রপন্থীদের হুমকির মুখে রয়েছে; যেখানে গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ধর্মনিরপেক্ষ ৩ ব্লগার খুন হয়েছেন।

বুধবার এক টুইট বার্তায় তসলিমা নাসরিন বলেছেন, বাংলাদেশে সম্প্রতি নাস্তিক ব্লগারদের হত্যায় জড়িত উগ্রপন্হীদের হুমকিতে আমি উদ্বিগ্ন। এজন্য ভারত সরকারের কাছে সাক্ষাতের জন্য আবেদন করছিলাম। কিন্ত সাড়া পাওয়া যায়নি। এরপর আমি ভারত থেকে চলে এসেছি। নিরাপদ মনে করলেই ভারতে ফিরে যাব।”

টুইটারে ৫২ বছর বয়সী তসলিমা আরও বলেছেন, “আমি মাঝেমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে যাই। সেখানে আমি লেকচার দেই। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাই। আমি স্থায়ীভাবে ভারত ছাড়িনি। ভারত সরকার সব সময় আমাকে নিরাপত্তা দিয়েছে।”

উল্লেখ, বাংলাদেশের মৌলবাদীদের প্রাণনাশের হুমকির জেরে ১৯৯৪ সাল থেকে গত দুদশকের নির্বাসনে কখনও আমেরিকা, ইউরোপ, কখনও ভারতে কাটিয়েছেন তসলিমা।

২০০৪ সাল থেকে তিনি নিয়মিত ভারতে থাকার রেসিডেন্ট পারমিট পেয়ে আসছিলেন।

কিন্তু ২০০৭ সালে পশ্চিমবঙ্গের বামফ্রন্ট সরকার তাকে কলকাতা থেকে তাড়িয়ে দেয়। এরপর থেকে তিনি নয়াদিল্লির বাসিন্দা ছিলেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ