কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা বাসের পরীক্ষামূলক যাত্রা
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » বিবিধ

কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা বাসের পরীক্ষামূলক যাত্রা

ভারতের কলকাতা থেকে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা হয়ে ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় পরীক্ষামূলকভাবে বাস চলাচল শুরু হয়েছে আজ। ভারতীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কলকাতার সল্টলেকের আন্তর্জাতিক বাস টার্মিনাল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছাড়ে প্রথম বাসটি।

Kolkata

কলকাতা থেকে ত্রিপুরার উদ্দেশ্যে পরীক্ষামূলক বাস পরিষেবার যাত্রার উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গের পরিবহন দপ্তরের প্রধান সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই বাস পরিষেবার পরীক্ষামূলক উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গের পরিবহন দপ্তরের প্রধান সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় পৌঁছাবে সেটি।

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আগামী ৪ জুন পশ্চিমবঙ্গের সচিবালয় নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে এই পরিষেবার উদ্বোধন করবেন। ওই বাসে করে ৩৫ জন ভারতীয় সাংবাদিক ঢাকায় যাবেন।

প্রথম বাসে ১০ জন কর্মকর্তা ও পরিসেবা সংস্থার কর্মী রয়েছেন। এর নেতৃত্ব দিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের পুলিশের আইজি (বর্ডার) অখিল রায়। এই বাসটি আগামীকাল বিকেলে আগরতলা থেকে যাত্রা শুরু করে পরদিন বুধবার সকালে আবারও কলকাতায় পৌঁছাবে।

কলকাতার শ্যামলী যাত্রী পরিবহনের কর্ণধার অবনী ঘোষ বলেন, আগামী ৬ জুন থেকে নিয়মিত চলবে এই পরিষেবা। কলকাতা থেকে আগরতলা কিংবা আগরতলা থেকে কলকাতায় যাত্রার প্রতি টিকেটের মূল্য ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ২ হাজার রুপি।

তিনি জানান, কলকাতা ও আগরতলা থেকে এই বাস সপ্তাহে ৩ দিন করে চলবে। কলকাতা থেকে সোম, বুধ ও শুক্রবার এবং আগরতলা থেকে মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শনিবার চলবে এই বাস পরিষেবা।

প্রসঙ্গত, আগরতলা থেকে কলকাতার দূরত্ব প্রায় ১ হাজার ৬৫০ কিলোমিটার। এই পরিষেবা চালু হলে দূরত্ব কমে দাঁড়াবে মাত্র ৫১৩ কিলোমিটারে; অর্থাৎ ১ হাজার ১৩৭ কিলোমিটার দূরত্ব কমে যাবে। কলকাতা থেকে পশ্চিমবঙ্গ ভূতল পরিবহন নিগমের লাইসেন্স নিয়ে শ্যামলী যাত্রী পরিবহন এই পরিষেবা চালাবে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সংস্থার (বিআরটিসি) লাইসেন্স নিয়ে ঢাকা থেকে এই পরিষেবা চালাবে শ্যামলী পরিবহন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ