সোমবার দুদকে আসছেন এমপি আসলাম

Md.-Aslamul-Hoque
সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ করার পরামর্শ আসলামের
Md.-Aslamul-Hoque-14_36433_0নির্বাচন কমিশন দেওয়া হলফনামায় সম্পদের অস্বাভাবিক বৃদ্ধির বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করার পর  দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সাথে দেখা করতে আগামি ২৭ জানুয়ারি কমিশনে আসছেন ঢাকা ১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক। দেখা করবেন দুদকের চেয়ারম্যানের সাথে।
বৃস্পতিবার বিকেলে দুদক চেয়ারম্যানের কাছে চিঠির মাধ্যমে সময় চেয়ে কমিশনে আসার কথা জানান বলে নিশ্চিত করেন দুদকের নির্ভরযোগ্য সূত্র।
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের  হলফনামায় আসলামুল হক উল্লেখ করেছেন, তিনি ও তার স্ত্রী এখন ১৪৫ দশমিক ৬৭ একর জমির মালিক। জমির দাম উল্লেখ করা হয়েছে ১ কোটি ৯২ লাখ ৯৯ হাজার ৫০০ টাকা। ৫ বছরে স্বামী-স্ত্রীর জমি বেড়েছে ১৪০ একরের বেশি। আর বাড়তি এ জমির মূল্য দেখিয়েছেন ১ কোটি ৭২ লাখ ৩০ হাজার টাকা। বিষয়টি পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর  দুদকের পক্ষ থেকে তিনিসহ বিগত মহাজোট সরকারের সাত মন্ত্রী-এমপির বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন ও হলফ নামায় দেওয়া সম্পদ বিবরণীর অস্বাভাবিক বৃদ্ধির বিষয়ে অনুসন্ধান কর্মকর্তা নিয়োগ করে দুদক। এতে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অনুসন্ধানে উপ-পরিচালক শেখ ফাইয়্যাজ আলমকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
এর আগে গত বুধবার কমিশনের নিয়মিত বৈঠকে সাত অনুসন্ধান কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়। আসলামুল ছাড়াও যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত করা হচ্ছে তারা হলেন— সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক, সাবেক গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান, সাবেক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মাহবুবুর রহমান, সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী এনামুল হক, চট্টগ্রাম-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি এবং সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল জব্বার।

নিয়োগপ্রাপ্ত তদন্ত কর্মকর্তারা হলেন— দুদকের উপপরিচালক মির্জা জাহিদুল আলম, নাসির উদ্দিন, খায়রুল হুদা, আহসান আলী, সৈয়দ তাহসিনুল হক এবং সহকারী পরিচালক মাসুদুর রহমান।
এইউ নয়ন/এআর