কিশোরগঞ্জে ১৫টি দোকান পুড়ে ছাই

Kishorganj Picকিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার পিটুয়া বাজারে বুধবার সকালে ১৫টি দোকান আগুনে পুড়ে গেছে। এতে  প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন। এ সময় আগুন নিভাতে গিয়ে জ্ঞান হারিয়ে মনজিল মিয়া (৪৪) নামে একজন মারা গেছেন।

সরেজমিন থেকে জানা গেছে, করিমগঞ্জ উপজেলার কাদিরজঙ্গল ইউনিয়নের পিটুয়া বাজারে একটি ওয়ার্কশপের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। এ সময় আশপাশের দোকানগুলোতে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। প্রায় দেড়ঘণ্টাব্যাপী এ আগুনে অন্তত ১৫টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। পরে কিশোরগঞ্জ থেকে ফায়ার ব্রিগেডের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

আগুনে ব্যবসায়ী সুমনের মুদি দোকান, মাসুমের ধানচালের দোকান, বাচ্চু মিয়ার পাটের দোকান, সাইফুল ও ডা. দীন ইসলামের ওষুধের দোকান, ফজলুর রহমানের ওয়ার্কশপের দোকানসহ মস্তফা, আলাউদ্দিন, আবুদল করিম, রমজান, দানিছ মিয়া, আব্দুল হাই, ফেরদৌস মিয়া, ও নুর ইসলামের দোকান সম্পুর্ণভাবে পুড়ে যায়। বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে আগুন নিভাতে গিয়ে মনজিল মিয়া নামে এক পিঠা ব্যবসায়ী মারা গেছেন। সে পিটুয়া দশআনি পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের ছেলে বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে অন্যদের মতো মনজিল মিয়া আগুন নিভাতে গিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। দ্রুত তাকে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। খবর পেয়ে করিমগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. রফিকুর রহমান রফিক পিটুয়া ঘটনাস্থলে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদেরকে সান্ত্বনা দেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে বলে জানা গেছে।

কেএফ