'দোষীদের কঠোর বিচার করা হবে'
বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » জাতীয়

‘দোষীদের কঠোর বিচার করা হবে’

hasinaহরতাল, অবরোধসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে পোশাক কারখানার নিরাপত্তা এবং কারখানায় সহিংস ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার সন্ধ্যায় পোশাক কারখানার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি, নিরাপত্তা ও গাজীপুরের স্ট্যান্ডার্ড সোয়েটার কারখানার আগুনে কোম্পানিটির ক্ষতিপূরণ, দেশের চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা থেকে পোশাক শিল্পকে রক্ষার দাবী নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গণভবনে গেলে তিনি তাদের এ আশ্বাস দেন।

এদিকে এই দিকে এই পরিস্থিত নিয়ে বিরোধী দলীয় নেত্রীর সাথে সাক্ষাতের কথা থাকলেও তিনি কার্যালয়ে না আসার কারনে তার সঙ্গে ব্যবসায়ীদের কোনো বৈঠক হয়নি। উল্লেখ্য বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই, বিজিএমইএ, বিকেএমইএ ও বিটিএমইএর নেতারা। গণভবন থেকে বিজিএমইএর সভাপতি আতিকুল ইসলামের নেতৃত্বে ২৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দলকে গণভবনে যাওয়ার অনুমতি পায়। বৈঠক শেষে বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান প্রধানমন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্ত কারখানাটি পরিদর্শনে যাবেন। এবং এর পর তিনি দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবেন। বিজিএমইএ সভাপতি আরও বলেন, ‘নিরাপত্তার অভাবে কারখানা চালাতে আমরা আস্থা পাচ্ছি না। রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে শিল্প খাত বলি হচ্ছে। এভাবে আর কত দিন বলি হব? অন্যথায় কারখানা বন্ধ করে দিতে হবে।’ এফবিসিসিআই সভাপতি কাজী আকরামউদ্দিন আহ্মদ সাংবাদিকদের বলেন, কারখানার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ওই কারখানার শ্রমিকদের মধ্য থেকে একটি নিরাপত্তা দল গঠনের পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া স্ট্যান্ডার্ড গ্রুপের পোশাক কারখানার আর্থিক ক্ষতি কাটিয়ে অর্থমন্ত্রী ও বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। বিজএমইএর আরেকটি সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে পোশাক কারখানাগুলো কি পয়েন্ট ইনস্টলেশন (কেপিআই) ঘোষণা করার দাবি জানানো হয়।আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম নির্বিঘ্ন করতে ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়ার দাবি জানান তারা।

এই বিভাগের আরো সংবাদ