বিএনপি নেতা খোকন ও বকুল মুক্তি পেলেন

খোকন ও বকুল

খোকন ও বকুলবিএনপির যুগ্ম মহাসচিব  মাহবউদ্দিন খোকন ও নারায়নগঞ্জের সাবেক এমপি সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল কাশিমপুর কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

বুধবার সকালে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে বিএনপির এই দুই নেতা বেরিয়ে আসেন।

উল্লেখ্য, গত ২৯ ডিসেম্বর বিএনপির ঢাকামুখী অভিযাত্রা কর্মসূচির তিনদিন আগে ২৫ ডিসেম্বর রাতে গুলশানস্থ বিএনপি চেয়ারপার্সনের বাসার সামনে থেকে বকুলকে ও পরদিন ২৬ ডিসেম্বর খোকনকে আটক করে পুলিশ।

এদিকে আটকের পরদিন ২৬ ডিসেম্বর সাখাওয়াত হোসেন বকুলকে গ্রেপ্তার দেখানো হয় বাটারা থানায় দায়ের করা সংঘর্ষ ও গাড়ি ভাংচুরের একটি মামলায় । একইদিনে আদালতের মাধ্যমে তাকে কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়।

কারাধ্যক্ষ ফরহাদ জানান, গত ২৮ ডিসেম্বর  খোকনকে ঢাকা থেকে কাশিমপুর কারাগারে নেয়া হয়। ২১ জানৃয়ারী মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিএনপির এই দুজন নেতার জামিনের কাগজ-পত্র কারাগারে আসে। পরে যাচাই-বাছাই করে বুধবার বেলা ১১টার দিকে তাদের মুক্তি দেয়া হয়।

গত ২৪ ডিসেম্বর রাতে বাংলামোটরে পুলিশের গাড়িতে আগুন দিয়ে একজনকে হত্যা মামলায় খোকনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এছাড়া গত বছর ৫ মে হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় মতিঝিল থানায় দায়ের করা একটি মামলা এবং নভেম্বরে কমলাপুর থানায় দায়ের করা আরেকটি নাশকতার মামলায়ও তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

এরপর গত ২০ জানুয়ারি সোমবার বিএনপি নেতা ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনকে তিন মামলায় ছয় মাসের জামিন দেয় হাই কোর্ট।

এমআর/