মাদারীপুরে মন্দির ভাংচুর, ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেশ ত্যাগের হুমকি

madaripur
মাদারীপুরের মানচিত্র

madaripurমাদারীপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের উত্তর কাউকুড়ি গ্রামে সোমবার দুপুর ২টায় সুবাস দত্তের বাড়ির মনসা মন্দির ভাংচুর করেছে স্থানীয় ধলু মাতুব্বর ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। এসময় দুর্বৃত্তরা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় ঐ সংখ্যালঘু পরিবারকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেশ ত্যাগের হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ, স্থানীয় ও ক্ষতিগ্রস্থ পারিবার সূত্রে জানা গেছে, জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে স্থানীয় ঘটকচর গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী ধলু মাতুব্বর ১০/১২ সন্ত্রাসী নিয়ে সোমবার দুপুর ২টায় উত্তর কাউকুড়ি গ্রামের সুবাস দত্ত’র বাড়িতে হামলা চালায়। প্রথমে তারা অর্ধশত বছরের পুরানো মনসা মন্দিরে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। একই সময় বাড়ির গৃহবধু সবিতা দত্ত (৪০) ও অনিমা দত্তকে (২৫) বেদম মারপিট করে আহত করে। সন্ত্রাসীরা ঐ সময় বাড়ির প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং নগদ ২০ হাজার টাকাসহ দুটি স্বর্ণের আংটি লুট করে নিয়ে যায়। সন্ত্রাসীরা চলে যাওয়ার সময় ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঐ সংখ্যালঘু পরিবারকে দেশ ত্যাগ করতে হুমকি দেন। সংবাদ পেয়ে র‌্যাব-৮ এর মাদারীপুর ক্যাম্পের সদস্য ও সদর থানা পুলিশ ঘটনা স্থান পরিদর্শন করেছে। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সুবাস দত্ত জানান, ধলু মাতুব্বরের নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে মারধর, মনসা মন্দির ভাংচুর করেছে। এ সময় ঐ সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেশ ত্যাগের হুমকি দেয়।

মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, মারপিটের ঘটনা সত্য। তবে মন্দির ভাংচুরের ঘটনা রহস্যজনক।

মাদারীপুর পুলিশ সুপার খোন্দকার ফরিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আমি ঘটনাস্থানে পুলিশ পাঠিয়েছি। জেনেছি সন্ত্রাসীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। তবে এ ব্যাপারে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সাকি/