কালকিনিতে ডাকাতি, ২০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

madaripur1মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ভুরঘাটার কুন্ডুবাড়ী এলাকার জয় দাসের বাড়িতে রবিবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

এসময় ডাকাতদল নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মালামালসহ প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকা লুট করে নেয়। ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে পরিবারের ৪ জন আহত হয়। আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় কর্তব্য অবহেলায় আতিয়ার রহমান নামে এক এসআইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। কালকিনি থানার ওসি নাজমুল হুদাকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ডাকাতদের গ্রেফতার করে মালামাল উদ্ধারের আল্টিমেটাম দিয়েছেন মাদারীপুর পুলিশ সুপার খোন্দকার ফরিদুল ইসলাম।

পুলিশ, স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার খেয়ে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে রাত ২টার দিকে হঠাৎ ডাকাতদল কলাপসিবল গেট ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ফেলে।

১৫/২০ জনের ডাকাতদল স্টীলের আলমিরা ভেঙ্গে নগদ টাকা, ৪০ভরি স্বর্ণাংকার, ৫টি মোবাইল সেট, চার্জার লাইট ও মালামাল নিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ীর লোকজন চিৎকার দিলে ডাকাতদল তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

এসময় বাড়ীর মালিক জয় দেব দাস (৫৫), ছেলে যুগল দাস (৩২), শিমুল দাস (২৫), মেয়ে রিতা দাস (২৮) আহত হয়।

আহতদের কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। এদের মধ্যে শিমুল দাসের অবস্থা আশংকাজনক।

জয়দেব দাস এর স্ত্রী মায়া দাস বলেন, ১৫/২০ জনের ডাকাতদল মুখোশ পরা অবস্থায় আমাদের সকলকে বন্দুক ও দেশিয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে জিম্মি করে প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যাওয়ার সময় আমরা চিৎকার করলে তারা এলোপাতাড়ী কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

এই ঘটনায় কালকিনি থানার এসআই আতিয়ার রহমানকে প্রত্যাহার ও ওসি নাজমুল হুদাকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ডাকাতদের গ্রেফতারের আল্টিমেটাম দিয়েছে পুলিশ সুপার খোন্দকার ফরিদুল ইসলাম।

মাদারীপুর পুলিশ সুপার খোন্দকার ফরিদুল ইসলাম জানান, ডাকাতির ঘটনায় এক এসআইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। কালকিনি থানার ওসিকে ৪৮ ঘন্টা সময় দেয়া হয়েছে ডাকাতদের গ্রেফতার করার জন্য।

সাকি/