খুব সহজেই মাছের ভর্তা

Fish vortaমাছ সবসময়ই খাওয়া হয়। তবে তা সবজি দিয়ে রান্না করে। মাছের ভর্তা সবসময় খাওয়া হয়ে ওঠে না। কারণ হিসেবে অনেক ঝামেলাকেই দেখে সবাই। কিন্তু কিছু মাছ আছে যা দিয়ে খুব সহজেই ভর্তা বানানো যায়। এবং তা বাড়িতে বসেই। চিংড়ি ভর্তা, টাকি ভর্তা এবং শুঁটকি মাছের ভর্তার নাম শুনলেই মনে হয় আজ একটু বেশি খাব।

চিংড়ি, টাকি এবং শুঁটকি মাছের ভর্তা বানানো কত সহজ তা তুলে ধরা হলো-

চিংড়ি ভর্তাঃ

উপকরণ : কিছু ছোট চিংড়ি, কয়েকটা কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ কুচি, ধনিয়া পাতা, লবন (পরিমাণ মতো) এবং  সামান্য তেল।

যেভাবে বানাবেন:

সামান্য তেলে চিংড়িগুলো ভেঁজে নিন। সামান্য তেলে কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ কুচি, ধনিয়া ভেজে নিন। চিংড়িগুলো পরিষ্কার করে নিন। সাথে নিন লবণ। ব্যস। একে একে সব কিছু পাটায় বেঁটে নিতে হবে। চিংড়ি।কাঁচা মরিচ। পেঁয়াজ কুচি (ছবিতে নেই)। ধনিয়া পাতা।  ফাঁকে ফাঁকে সামান্য লবণ। সব কিছু বেঁটে নিন। ভালো করে মেখে নিন। ফাইনাল লবণ দেখুন। ব্যস হয়ে গেল চিংড়ি ভর্তা। কত সহজ এবং সাধারণ। ভর্তা আমাদের খাবার-দাবারের একটা বিশেষ স্থান দখল করে আছে, জুড়ি মেলা ভার।

টাকি মাছ ভর্তাঃ

উপকরণ: টাকি মাছ, তেল, লবণ, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, মরিচ এবং একটু জিরা গুঁড়া।

যেভাবে বানাবেন:

মাছ পরিষ্কার করে নিতে হবে। এখন গরম তেলের মধ্যে পেঁয়াজ, রসুন এবং আদা বাটা দিয়ে একটু নাড়াতে হবে। এই মসলা একটু ভাজা হলে মাছ দিয়ে দিতে হবে। মাছ দেওয়ার পর আর একটু নাড়াচাড়া করতে হবে। এখন একটু জিরা গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া অথবা কাঁচা মরিচ এবং লবণ, হলুদ দিয়ে নাড়াতে হবে। ভাজা হয়ে গেলে নামিয়ে হাত দিয়ে অথবা ভর্তা বানানো পাত্রে মেখে ভর্তা বানাতে হবে।

শুঁটকি ভর্তাঃ

উপকরণ: শুঁটকি, পেঁয়াজ, রসুন, জিরা গুঁড়া, মরিচ এবং লবণ।

যেভাবে বানাবেন: প্রথমে শুঁটকি একটু গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এখন গরম তেলে মসলাগুলোকে একটু ভেজে নিতে হবে। এরপর শুঁটকি দিয়ে ভালোভাবে ভেজে নিতে হবে। ভাজা শেষে গরম গরম বেটে নিতে হবে অথবা ভর্তা করার পাত্রে ভর্তা বানাতে হবে। এখন আপনার পছন্দ মতো পরিবেশন করুন।

এমআরবি/