তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ভারতের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

পোশাক কারখানা
ছবি: ফাইল ছবি

পোশাক শ্রমিকভবন ধস, কারখানায় অগ্নিকাণ্ড, রাজনৈতিক অস্থিরতার পরেরও ২০১৩ সালে বাংলাদেশে তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ভারত কে ছাড়িয়ে গেছে। ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত বৈদেশিক বাণিজ্যের ব্যাংকের (এক্সিম ব্যাংক) এক নিরীক্ষায় জানিয়েছে, আলোচ্য বছরের জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদশের তৈরি পোশাক রপ্তানির পরিমান ও আয় ভারতের চাইতে অনকে বেশি ছিল।খবর প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া।

ব্যাংকটির হিসাব অনুসারে আলোচ্য সময়ে ভারত যুক্তরাষ্ট্রে তার রপ্তানি বাড়িয়েছে। এই সময়ে পোশাক খাতে ভারতের রপ্তানি বেড়েছে ৬ দশমিক ৩ শাতাংশ হারে। আর ভারত আয় করেছে ৩২০ কোটি মার্কিন ডলার।

বিপরীতে একই সময়ে বাংলাদেশের রপ্তানি বেড়েছে ১১ দশমিক ৪ শতাংশ হারে। আর বাংলাদেশ আয় করেছে ৫৯০ কোটি ডলার।

এবিষয়ে এক্সিম ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক প্রাহালাথান আইয়েন বলেন, ‘ আমাদের কাছে এখনও সারা বছরের হিসাব নেই তবুও আলোচ্য সময়ে কেবল যুক্তরাষ্ট্রে যা রপ্তানি হয়েছে তা থেকেই বাকি সময়ে কেমন রপ্তানি হবে তা অনুমান করা যায়।’

তার মতে এ সময়ে বাংলাদেশ তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ‘আগ্রাসী’ উন্নতি করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৫ সালে বাংলাদেশর পোশাক রপ্তানির পরিমাণ ছিল ৬৮০ কোটি ডলার।আর কয়েক বছরের ব্যবধানে ২০১২ সালে পোশাক রপ্তানির পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯৯০ কোটি টাকা।

আইয়েন মতে, বাংলাদেশে এখাতে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ এবং চট্টগ্রাম বন্দরে অগ্রাধিকার প্রদানসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে তার উন্নতি করেছে।