যুক্তরাষ্ট্র নয় মৃত্যুর কাছে ধরা পড়লেন তিনি

Hiroo Onodaতখন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ প্রায় শেষ পর্যায়ে। জাপানিদের বিশ্বজয়ের নেশা ছুটে গেছে । মার্কিনীদের কাছে আত্মসমর্পণের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে জাপানি সেনাদের। কিন্তু বেঁকে বসলেন লেফটেন্যান্ট হিরো ওনোডা। আত্মসমর্পণ করবেন না তিনি। হয় মরবেন, নয় মারবেন। মার্কিনীদের চোখে ধুলো দিয়ে ফিলিপাইনের জংগলে কাটিয়ে দিলেন ২৯ বছর। অবশেষে ১৯৭৪ সালে তার উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সশরীরে ফিলিপাইন গিয়ে জাপান ফিরিয়ে আনলেন তাকে। শুক্রবার টোকিওতে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন তিনি। খবর বিবিসির।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯১ বছর। ২০১০ সালে এবিসি বার্তা সংস্থাকে এক সাক্ষাৎকারে ওনোডা বলেন, প্রতিটি জাপানি সেনা মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত ছিল। কিন্তু গোয়েন্দা কর্মকর্তা হিসেবে আমাকে মারা না গিয়ে গেরিলা অপারেশন চালানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।
তাকে আত্মসমপর্ণ করানোর উদ্দেশ্য বেশ কয়েকবার অভিযান পরিচালনা এবং লিফলেট বিতরণ করা হয়েছিল। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, অভিযান পরিচালনাকারীদের আমি প্রতিবারই ধোঁকা দিয়েছি এবং লিফলেটগুলো ভুলে ভরা ছিল। আমার মনে হয়েছিল এটা মার্কিন ষড়যন্ত্র।