মেকআপ ছাড়ুন চার কারণে

Makeup artist applying eyeshadowকোথাও বের হওয়ার সময় বা বেড়াতে যাওয়ার আগে কিংবা কোনো উৎসব হওয়ার আগেই সারাদিন রং মেখে সং সাজা অর্থাৎ মাত্রাতিরিক্ত মেকআপ করা মেয়েদের সংখ্যা একেবারে কম নয়। এতে হয়তো তাদের সৌন্দর্য সাময়িকের জন্য বেড়ে যায়।  কিন্তু তাতে সৌন্দর্য তো আর দীর্ঘ স্থায়ীত্ব লাভ করতে পারে না। তাহলে এতো কিছু কেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক- কোন কোন কারণে মেকআপ ছাড়বেন আপনি।

এক. মেকআপ কম করুন টাকা বাঁচান:

ভ্যানিটি ব্যাগ ভর্তি প্রসাধনী সামগ্রী বয়ে নিয়ে বেড়ানো মেয়েদের সংখ্যা কম নয় । এদের অনেকেই প্রসাধনী সবটুকু ব্যবহার করেন আবার অনেকেই বাড়িতে ব্যবহারের পর ব্যাগের প্রসাধনী কম ব্যবহার করেন। এর ফলে অনেকদিন ব্যাগে পড়ে থাকে এ গুলো। এক সময় ফেলে দেন তারা। এমন মেয়েদের জন্য মেকআপের উদ্দেশ্যে ‘অর্থ জলে ফেলে দেওয়া প্রায়’ । তাই ভেনিটি ব্যাগে প্রয়োজন ছাড়া প্রসাধনী সামগ্রী কম রাখুন, টাকা বাঁচান। শুধু বড় কোনো উৎসব, অনুষ্ঠান ছাড়া মেকআপ ছেড়ে দিন।

দুই. স্কিনকে শ্বাস-প্রশ্বাস ত্যাগ করতে দিন:

সবচেয়ে বড় কারণ হচ্ছে প্রসাধনীতে ক্ষতিকর কেমিক্যাল থেকে আপনার ত্বককে বাঁচাতে মেকআপ ছাড়ুন। মনে রাখুন ত্বক হচ্ছে দেহের একটি অংশ তাই সেটার যত্ন নেওয়ার দায়িত্বও আপনার। তাই মাঝে মাঝে ত্বককে স্বস্তি দিন।

তিন. নিজেকে তৈরি করুন স্বাভাবিক সৌন্দর্যে:

স্বাভাবিক সৌন্দর্য আর কৃত্রিম সৌন্দর্য দুইটি ভিন্ন জিনিস। মেকআপের পর কেউ আপনার চেহারার গুণগান  করলে আপনার হয়তো একটু ভালো লাগতে পারে কিন্তু এই ভালো লাগা ক্ষণস্থায়ী। দীর্ঘস্থায়ী সেটাই যেটা আপনার স্বাভাবিক সৌন্দর্য আছে। স্বাভাবিকভাবে একটু সুন্দর হাসিই আপনার চেহারাকে সুন্দর রাখতে পারে। তাই চেহারায় কৃত্রিমতা দূর করুন, নিজেকে তৈরি করুন স্বাভাবিক সৌন্দর্যে।

চার. সবাইকে জানিয়ে দিন মেকআপ ছাড়াই আপনি সুন্দর আছেন:

নারীর মেকআপ ছাড়া চেহারাও এক ধরনের ইতিবাচক বার্তা দেয়।কারণ অনেকেই বলে থাকেন,  চেহারা ভালো তবে একটু বেশি মেকআপ করে। তাই সবার ভেতর এই ধারণা দিন মেকআপ ছাড়াই আপনি সুন্দর আছেন। সূত্র: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া

এস রহমান/ এআর