৫ হাজার টাকা ছাড়ে রানার মোটরসাইকেল

runner motor cycle

runnerআন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় রানার মোটর সাইকেল কিনলে নগত ৫ হাজার টাকা ছাড় পাওয়া যাবে। ১৩টি মডেলের মোটরসাইকেল নগদ ক্রয়ে এ সুবিধা রয়েছে বলে জানান কর্তৃপক্ষ। এছাড়া মোটরসাইকেল কেনার পর জীবন বিমা সুবিধা পাওয়া যাবে।

রানার মোটরসাইকেলগুলো ৫০ থেকে ১৫০ সিসি পর্যন্ত পাওয়া যায়। এদের দামও হাতের নাগালে।  যা এ দেশে একমাত্র রানার গ্রুপই চালু করেছে বলে জানান রানার গ্রুপের এক উর্ধতন কর্মকর্তা।

রানারের বিভিন্ন মডেলের গাড়ির দামঃ

ডিওয়াই মডেলের মোটরসাইকেলটি ৫০ সিসি। এটির দাম ৭৪ হাজার টাকা। এডি ৮০ এস- এলোয় মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ৮০ হাজার টাকা। এডি ৮০ এস-ডিলাক্স মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ৮৪ হাজার টাকা। গ্লাক্সি মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ৮৫ হাজার টাকা। এটি ৮০ সিসির মোটরসাইকেল। ১০০ সিসির এপোলো মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ৯০ হাজার টাকা। ফ্রিডম এফ ১০০৬এ মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ৮৫ হাজার টাকা।

ঢাকার রাস্তায় প্রায়ই দেখা যায় রানারের বুলেট মডেলের মোটরসাইকেলটি। ১০০ সিসির এ মোটরসাইকেলটির দাম ৯৭ হাজার টাকা। রয়্যাল প্লাস মডেলের গাড়িটির দাম ১ লাখ ২ হাজার টাকা। এটি ১১০ সিসির। রয়্যাল ইএস মডেলের গাড়িটির দাম ৯৫ হাজার টাকা। এটি ১০০ সিসির। ডায়াং বুলেট মডেলের ১৩৫ সিসির মোটরসাইকেলটির দাম ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

টারভো মডেলের মোটরসাইকেলটি ১৫০সিসির। এটির দাম ১ লাখ ৪২ হাজার।

এল এম এম এল ফ্রীডম মডেলের মোটরসাইকেলটির দাম ১ লাখ ৪৫ হাজার। এটি ১১০ সিসির। ট্রোভার মডেলের মোটরসাইকেলটি ১০০ সিসির। এর দাম ১লাখ ৪৫হাজার টাকা।

প্রতিটি মোটরসাইকেল নগত কিনলে ৫ হাজার টাকা ছাড় পাওয়া গেলে সবচেয়ে কম দামের মোটরসাইকেল পাওয়া যাবে ৬৯ হাজার টাকায়। এটি ৫০ সিসির ডিওয়াই মডেল।

রানার গ্রুপের উর্ধতন নির্বাহী বিক্রয়দাতা মোঃ মাজিদুল ইসলাম বলেন, আমরা দেশেই এই মোটরসাইকেল উৎপাদন করছি। কমমূল্যে দেশের সবার জন্য এই মোটরসাইকেল তৈরি করছি।

তিনি আরও বলেন, দেশকে সমৃদ্ধ ও আত্নকর্মসংস্থান সৃষ্টি করার প্রত্যয় নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে রানার গ্রুপ। আর তাই আমাদের এই পদক্ষেপ।

তিনি আরও বলেন, যারা একসাথে সম্পূর্ণ টাকা দিয়ে কিনতে পারবে না। তাদের জন্য কিস্তির ব্যবস্থা আছে। সারাদেশের সকল বিক্রয় কেন্দ্র থেকে একই মূল্যে মোটরসাইকেল বিক্রি হয়ে থাকে বলে জানান তিনি।

রানার মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন চায়না থেকে আনা হয়। এছাড়া মোটরসাইকেলের কারখানা ময়মনসিংহের ভালুকায়।

প্রতিটি মোটরসাইকেলে ৩ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা রয়েছে। ইঞ্জিনের ক্ষেত্রে ৩০ হাজার কিমি পর্যন্ত এ সেবা পাওয়া যাবে। এছাড়া আউটফিটিং এর ক্ষেত্রে ১ বছর বা ১০ হাজার কিমি পর্যন্ত এ সেবা পাওয়া যাবে বলে জানান রানার কর্তৃপক্ষ। আর মোটরসাইকেল কিনলে সাথে দেওয়া হয় হেলমেট।

কবির