সাত আসনে ভোটগ্রহণ শুরু, স্থগিত কুড়িগ্রাম-৪

Vote-Day

Vote-Day দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সহিংসতার কারণে স্থগিত হওয়া আটটি আসনের মধ্যে সাতটিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। আজ সকাল ৮টায় এই ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিকেল চারটা পর্যন্ত এই ভোটগ্রহণ চলবে। অন্যদিকে, আদালতের নিষেধাজ্ঞার কারণে কুড়িগ্রাম-৪ আসনের ভোটগ্রহণ স্থগিত রয়েছে।

এর আগে ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে সহিংসতার কারণে ওই আটটি আসনের ৩৯২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। স্থগিত আসনগুলো হলো- দিনাজপুর-৪, কুড়িগ্রাম-৪, গাইবান্ধা-১, ৩ ও ৪, বগুড়া-৭, লক্ষ্মীপুর-১ এবং যশোর-৫

বুধবার কুড়িগ্রাম-৪ আসনের দুটি কেন্দ্রে ভোট কার্যক্রম স্থগিত করেছে আদালত। ভোটগ্রহণ উপলক্ষে ওইসব এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

যে ৭টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে সেগুলো হল-

গাইবান্ধা-১: গাইবান্ধা-১ আসনের ১০৯টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয়েছে ৫৪টি। এসব কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৫৮ হাজার ২০৯ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে আওয়ামী লীগের মনজুরুল ইসলাম লিটন ৬৮ হাজার ৯৯৩ ভোট ও জাতীয় পার্টির আব্দুল কাদের খান ৮ হাজার ৩৮৬ ভোট পেয়েছেন।

গাইবান্ধা-৩: গাইবান্ধা-৩ আসনের ৮০টি কেন্দ্রে ভোট স্থগিত হয়েছে। এতে ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ২৬ হাজার ৬২৭ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে আওয়ামী লীগের ইউনুস আলী সরকার ৭০ হাজার ৬৬৪ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী এস এম খাদেমুল ইসলাম খুদি ১২ হাজার ৭৮১ ভোট পেয়েছেন।

গাইবান্ধা-৪: গাইবান্ধা-৪ আসনের ১৩০টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয়েছে ৭২টি। এতে ভোটার  সংখ্যা ২ লাখ ৭৭ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ ৫৯ হাজার ৮৬২ ভোট এবং আওয়ামী লীগের মনোয়ার হোসেন চৌধুরী ১৮ হাজার ৮০৬ ভোট পেয়েছেন।

দিনাজপুর-৪: দিনাজপুর-৪ আসনের ১২০টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয়েছে ৫৭টি। এসব কেন্দ্রে  মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৩৪ হাজার ৯১৯ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ৬৮ লাখ ৮৮, ওয়ার্কার্স পার্টির এনামুল হক সরকার ১ হাজার ৩৮০ ভোট পেয়েছেন।

বগুড়া-৭: বগুড়া-৭ আসনের ১৬১টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয়েছে ৪৬টি। এসব কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ১৫ হাজার ৮৬৫ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে জাতীয় পার্টির মুহম্মদ আলতাফ আলী ৭ হাজার ৪৩ ভোট এবং জেপির এটিএম আমিনুল ইসলাম ৩ হাজার ১৭৫ ভোট নিয়ে লড়বেন।

যশোর-৫: যশোর-৫ আসনের ১২২টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয়েছে ৬০টি। এসব কেন্দ্রে মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৩৯ হাজার ২৯৬ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে আওয়ামী লীগের খান টিপু সুলতান ৩০ হাজার ৫৩১ ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী স্বপন ভট্টচার্য্য ১৮ হাজার ৩৩১ ভোট পেয়েছেন।

লক্ষ্মীপুর-১: লক্ষ্মীপুর-১ আসনের ৮১টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয়েছে ২১টি। এসব কেন্দ্রে  মোট ভোটার সংখ্যা ৫০ হাজার ২৭৯ জন। পূর্বে অনুষ্ঠিত হওয়া কেন্দ্রগুলোর ফলাফলে নৌকা প্রতীকে তরীকত ফেডারেশনের এম এ আউয়াল পেয়েছেন ৩২ হাজার ৫৭ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী সফিকুল ইসলাম পেয়েছেন ২০ হাজার ৯১১ ভোট।