চট্টগ্রামে ঢিলেঢালা হরতাল, আটক ৪

chittagong

chittagongজামায়াত-শিবিরের ডাকা হরতালে চট্টগ্রাম নগরী ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কোনো ধরনের নাশকতার খবর পাওয়া যায় নি। আজ বেলা বাড়ার সাথে সাথে চট্টগ্রাম নগরী ও মহাসড়কে বাড়তে থাকে যানবাহনের সংখ্যা। নগরীর কোতোয়ালী থানা ও বদ্দারহাট এলকায় শিবির মিছিল করার চেষ্টা করলে তা পুলিশের বাধায় পণ্ডু হয়ে যায়। এ সময় শিবিরের চার নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ।

এদিকে  হরতালের অজুহাতে যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মহাসড়কে দূরপাল্লার বাস চলাচল কম হলেও ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান চলাচল করেছে চোখে পড়ার মতো। চট্টগ্রাম থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম স্টেশন ব্যবস্থাপক সামসুল আলম।

চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ থেকে পণ্য উঠা-নামা স্বাভাবিক ছিল। সেই সঙ্গে কিছু ট্রাক পণ্য নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে বলে বন্দর সূত্রে জানা গেছে। বেসরকারি ডিপুগুলোতেও কিছু কন্টেইনার খালাশ হচ্ছে বলে জানা গেছে।

চট্টগ্রাম পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মুনজুর মোর্শেদ বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীর কোথাও কোনো নাশকতার খরব পাওয়া যায় নি। সীতাকুণ্ড মহাসড়কে সার্বক্ষণিক পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন আছে। নগরীতে অতিরিক্ত দুই হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে । প্রয়োজন হলে আরও ফোর্স মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রশিবিরের কর্মী মামুন হায়দার হত্যার প্রতিবাধে বুধবার বৃহত্তম চট্টগ্রামে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করছে ছাত্রশিবির।