শনিবার, অক্টোবর ৩১, ২০২০
Home জাতীয় অর্থনীতি হরতাল-অবরোধে ক্ষতিগ্রস্তরা শিল্প সহায়তা পাবে: হাসিনা

হরতাল-অবরোধে ক্ষতিগ্রস্তরা শিল্প সহায়তা পাবে: হাসিনা

হরতাল-অবরোধে ক্ষতিগ্রস্তরা শিল্প সহায়তা পাবে: হাসিনা

hasina at international-trade fairপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি জামায়াতের হরতাল-অবরোধে ক্ষতিগ্রস্ত শিল্পখাতকে পর্যাপ্ত সহায়তা দেবে সরকার। ইতোমধ্যে  এদেরকে কিছু ব্যাংকিং সুবিধা দেওয়া হয়েছে। আরও কিছু বিষয় প্রক্রিয়াধীন আছে। আগামিকাল শপথ নেওয়ার পর  নতুন সরকার এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

তিনি বলেন, হরতাল-অবরোধে তৈরি পোশাক খাত বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাদের সহায়তার ব্যাপারে  অর্থমন্ত্রীর সাথে আলোচনা হয়েছে। শিগগিরই তা চূড়ান্ত করা হবে।

শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১৯ তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৪’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ১৮ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধের মধ্যেও আমাদের রপ্তানি কমেনি বরং বেড়েছে। অর্থনীতির চাকা সচল রয়েছে। বিরোধী দল নানা ধ্বংসাত্মক কর্মসূচি দিয়ে রপ্তানি বন্ধ করে দিতে চেষ্টা করেছে কিন্তু পারে নি। এত জ্বালাও-পোড়াওয়ের মধ্যেও আমরা আমাদের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের রপ্তানি ১৮ শতাংশ বেড়েছে। আর দারিদ্রের হার পূর্বে ৪০ ভাগ ছিল তা কমিয়ে সরকার ১৬ ভাগে নিয়ে এসেছে। দেশে প্রবৃদ্ধির হার ৬ ভাগেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণভাবে গড়ে তোলেছি। এর আগে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বো ঘোষণা দিয়েছিলাম, আমাদের ঘোষণা সফলও হচ্ছে। আমরা ৫ বছরের মধ্যে ১০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতেও সক্ষম হয়েছি।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি-জামায়াত আন্দোলনের নামে হাজার হাজার বৃক্ষ নিধন করেছে। তাদের আন্দোলন থেকে  গরুও রেহাই পায় নি। আওয়ামী লীগও আন্দোলন করেছে কিন্তু দেশের সাধারণ মানুষের সমর্থন নিয়ে করেছে কিন্তু তাদের মতো জ্বালাও-পোড়াও করেনি।

তিনি বলেন, আমরা আগেও ঘোষণা দিয়েছিলাম এখনো দিচ্ছি ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নত দেশ হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি জামায়াতের হত্যা কর্মকাণ্ড নির্মূলে আপনাদের সহযোগিতা চাই। এ সময় তিনি আরও বলেন, আমি বিরোধী দলীয় নেত্রীকে বার বার সমঝোতায়  আসার আহবান জানিয়েছিলাম কিন্তু তিনি এর বিপরীতে আমাকে বার বার আল্টিমেটাম দিয়েছেন।