সন্ত্রাসের হাত ধরে গণতন্ত্র চলতে পারে না : আয়েশা খানম

ayasha khanamসন্ত্রাসের হাত ধরে গণতন্ত্র চলতে পারে না, শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে এমন মন্তব্য করেন মহিলা পরিষদের সভাপতি আয়েশা খানম।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দেশব্যাপী সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর সহিংস সন্ত্রাসী হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

সময়মত জামায়াতকে ত্যাগ করা হবে বিবিসিকে দেওয়া খালেদা জিয়ার এমন স্বাক্ষাতকার প্রসঙ্গে আয়েশা খানম বলেন, আগে জামায়াতের সঙ্গে আপনাদের ঐক্য বিচ্ছিন্ন করুন। তাদের সঙ্গে রাজনৈতিক সখ্যতা পরিহার না করলে নারী মুক্তি আসবে না এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে না।

৭২ এর সংবিধান অনুযায়ী আমরা মানবিক বাংলাদেশ দেখতে চাই উল্লেখ করে আয়েশা বলেন, সংখ্যালঘুদের উপর হামলাকারীদের চিহ্নিত করে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দ্রুত বিচার আইনের আওতায় এনে তাদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, কমিশনারের ব্যর্থতা এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিরবতার কারণেই এসব হামলা হয়েছে। নির্বাচনের আগে আমরা নির্বাচন কমিশন ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্বাচনের সময় সার্বিক পরিস্থিতিকে স্বাভাবিক রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অনুরোধ জানিয়েছিলাম। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে হিন্দু অধ্যুসিত এলাকা সমূহের ভোটারদের জন্য সর্বোচ্চ নিরাপত্তা জোরদার করার কথা বলা হলেও এসব এলাকায়ই অনেক হামলা হয়েছে। এসব হামলার মদদদাতাদের খুঁজে বের করে তাদের আইনের আওতায় আনতে হবে।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদসহ একই দাবিতে বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ, স্টেপস টুয়ার্ডস ডেভেলপমেন্ট গ্যাড এলায়েন্স, বাংলাদেশ ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদও মানববন্ধনের আয়োজন করে।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন-মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু, মাকসুদা রেহেনা বেগম, সীমা মুসলীম প্রমুখ।

জেইউ/কেএফ