নতুন নির্বাচন দেওয়ার আহ্বান নাজমুল হুদার

najmul huda

najmul huda৫ জানুয়ারির সংসদ নির্বাচনকে বাতিল করে নতুন নির্বাচন দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ও বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বেলা ১২টার দিকে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট কর্তৃক আয়োজিত ‘সুস্থ রাজনীতির মাধ্যমে সুশাসন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশের প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে বেশির ভাগ নেতারা মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও তাদের মধ্যে গণতন্ত্রের লেশ মাত্র নেই। আজ যে সাংসদরা শপথ নিয়েছেন, এটা সম্পূণ সংবিধান বিরোধী। বর্তমান সংসদের মেয়াদ এখনও ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত রয়েছে। সুতরাং সংসদ বহাল থাকাকালে নতুন কোন সাংসদ শপথ নিতে পারেন না।

এ সময় বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ)র মহাসচিব শহিদ চৌধুরী বলেন, গত নির্বাচন কোন নির্বাচন নয়। এটা জাল ভোট ও ভোটারবিহীন নির্বাচন। এই নির্বাচন একটি অগ্রহণযোগ্য নির্বাচন।

তিনি আরও বলেন, আমরা ইসলামি মুল্যবোধে বিশ্বাসী। তাই দেশের ইসলামি মুল্যবোধে বিশ্বাসী দলগুলোর সঙ্গে বৈঠক করে আমরা একত্রে রাজনীতি করতে চাই।

বিশিষ্ট রাজনীতি বিশ্লেষক ও ঢাকা ১৭ আসনের সংসদ সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী লে.কর্ণেল (অব.) এমএ মান্নান মৃধা বলেন, গত পাঁচ তারিখের নির্বাচন প্রমাণ করে কোন দলীয় সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করা সম্ভব নয়। গত নির্বাচনে আমি ঢাকা ১৭ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছি সেখানে দেখেছি কিভাবে দলীয় প্রভাব খাটিয়ে তারা নির্বাচিত হয়েছেন। দুপুর পর্যন্ত যে সেন্টারে কোন ভোট পড়েনি। কিন্তু সেখানে হাজার হাজার ভোট কাস্ট হয়েছে।

বিএনফের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিস বলেন, দেশের সকল প্রতিবাদী গণমাধ্যম বন্ধ করে ইচ্ছামত দেশের মানুষের কাছে নিজস্ব মত পৌঁছে দিচ্ছে সরকার। তিনি বলেন, যদি গণতন্ত্রের সঠিক ব্যবহার করতে চান তাহলে সব বন্ধ পত্রিকা ও টেলিভেশন খুলে দিন।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনফের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিস, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ জিয়া, মহাসচিব শহিদ চৌধুরী, গণফোরামের সেক্রেটারি জেনারেল মোস্তফা মহসিন মন্টু, বিশিষ্ট রাজনীতি বিশ্লেষক ও ঢাকা ১৭ আসনের সংসদ সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী লে. কর্ণেল (অব) এম.এ মান্নান মৃধা, সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোটের আহ্বায়ক গাজী মোস্তাফিজুর রহমান ও বিএনএফের যগ্ম মহাসচিব মো. আশরাফুজ্জামান প্রমুখ।

এসএস/কেএফ