কুড়িগ্রামে শৈত্য প্রবাহ; ৯ শিশুসহ ১২ জনের মৃত্যু

Kurigram cold wave vt-2 002
কুড়িগ্রামে শৈত্য প্রবাহের কারণে বসেই সময় পার করছেন সাধারণ মানুষ

Kurigram cold wave vt-2 002ঘন কুয়াশা ও শৈত্য প্রবাহ এবং উত্তরীয় হিমেল হাওয়ায় কুড়িগ্রামের জন জীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া মানুষজন ঘরের বাইরে বের হচ্ছে না। সবচেয়ে বিপাকে পড়েছে শ্রমজীব মানুষজন। শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধারা। গত ৭ দিনে শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ৯ শিশু সহ ১২ জনের মৃত্য হয়েছে।

এ অঞ্চলে ২য় দফা শৈত্য প্রবাহে বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। একদিকে হরতাল অবরোধের কারণে খেটে খাওয়া শ্রমিকরা কর্ম বিমুখ থাকায় কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। তার ওপর যোগ হয়েছে শীতের তীব্রতা। গরম কাপড়ের অভাবে নিম্ন আয়ের মানুষজন খরকুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছে। সবচেয়ে বিপাকে পড়েছে জেলার নদ-নদী তীরবর্তী চর ও দ্বীপ চরের মানুষজন। সারাদিন দেখা মিলছে না সূর্য্যের।

রংপুর আবহাওয়া অফিস জানায়, এ অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮দশমিক ৮ডিগ্রী সেলসিয়াসে রেকর্ড করা হয়ছে।

তীব্রশীত ও শৈত্য প্রবাহের সাথে পাল্লা দিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে শীত জনিত নানা রোগের। প্রতিদিন হাসপাতালে বাড়ছে শীত জনিত রোগীর সংখ্যা। এর মধ্যে শিশু ও বৃদ্ধের সংখ্যাই বেশী।

কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. নজরুল ইসলাম জানান, গত ৭ দিনে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ৯ শিশুসহ ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিদিনই রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এদের মধ্যে শিশুর সংখ্যাই বেশি।

সাকি/