সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা একাত্তরের পুনরাবৃত্তি: বাহাউদ্দিন নাসিম

afm_nasimবাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক-সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম বলেছেন, দেশে সংখ্যালঘুদের ওপর যেভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে তা ১৯৭১ সালে পাকবাহিনী ও তার দোসররা বাংলাদেশের বিজয়ের ঊষালগ্নে যে পোড়ামাটির নীতি অবলম্বন করেছিল তারই সাথে তুলনা করা যায়।

বুধবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে মহানগর ১৪দলের এক প্রস্তুতি সভায় বক্তৃতাকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, জামায়াত-শিবির মৌলবাদী জঙ্গিগোষ্ঠী দেশকে ইসলামী ভাবধারায় তালেবানিকরণ করার ষড়যন্ত্রে সব সময়ই লিপ্ত রয়েছে। এরা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, গণতন্ত্র ও বিশ্ব মানবতার শত্রু।  আমাদের দায়িত্ব হলো এই শত্রুদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, খালেদা জিয়া নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্রে ব্যর্থ হয়ে বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর ও সংঘাতপূর্ণ দেশ হিসেবে বিশ্বের কাছে উপস্থাপন করার জন্য জামায়াত-শিবির  জঙ্গিগোষ্ঠী দ্বারা এই নৃশংস হামলা চালিয়েছে। আমরা প্রশাসনিক ও রাজনৈতিকভাবে এই অপশক্তিকে মোকাবেলা করব।

আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দীর্ঘ দুই বছর আগে আমরা যে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছিলাম তাতে আমরা বিজয়ী হয়েছি। এই বিজয় মানে হলো নিজেকে সংযত করা-জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করা। তাই অবশ্যই আমাদেরকে নির্যাতিত সংখ্যালঘুদের পাশে দাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, ৪২ বছর আগে জামায়াত-শিবির অপশক্তি পরাজিত হলেও এখনো তারা পরাজয় মেনে নিতে পারে নি। তাই সবসময়ই তারা দেশে অরাজকতা তৈরির ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ-সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সভাপতিত্বে এ সময় সভায় আরও  উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, সাম্যবাদী দলের হারুন চৌধুরী, নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ও মহানগর ১৪ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

এসএসআর