'নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই'
বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » শিক্ষা

‘নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই’

DUযে এলাকায় ছাত্রলীগের ছেলেরা ছাড়া অন্য কেউ প্রবেশ করতে পারে না, সেই শাহবাগ এলাকায় কিভাবে অন্যরা বাস পোড়াতে পারে? এমন প্রশ্ন জনগণের সামনে রেখেছেন পরমাণু শক্তি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান এবং সিনেট সদস্য আবদুল আজিজ।

রোববার বেলা ১২ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সচেতন শিক্ষক সমাজ ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না মানব না, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই’ ব্যানারে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন করেন।

এ সময় আবদুল আজিজ বলেন, আওয়ামী লীগ নিজেরাই বাস পোড়ায়। পরিকল্পিতভাবে বাস পুড়িয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে তাদের কাজ যাতে বিএনপির নেতৃবৃন্দকে গ্রেপ্তার করা যায়। বিএনপির আন্দোলনের ভাবমূর্তিকে নষ্ট করার জন্য আওয়ামী লীগ এই সমস্ত কাজ করছে।

বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য সংবিধান পরিবর্তন করেছেন। শেখ মুজিব ১৯৭৩ সালে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে দেন নি, তার কন্যাও এখন সেই প্রচেষ্টা করছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘শেখ মুজিব গণতন্ত্রের গলা টিপে বাকশাল কায়েম করেছিলেন। তখন বাংলাদেশের মানুষ কথা বলতে পারত না। এখনো দেশে সেই অবস্থা চলছে।

বিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন ডীন অধ্যাপক তাজমেরী এস এ ইসলাম বলেন, আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন চাই, যেখানে সব দল অংশগ্রহণ করতে পারবে।

নির্বাচন কমিশনার নিজেকে বিক্রি করে দিয়েছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। সাংবিধানিকভাবে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করতে কোনো বাধা নেই। আপনারা জনগণের ভাষা বুঝতে চেষ্টা করন।

তারা জাতীয় প্রেসক্লবের সামনে মানববন্ধন শেষে শহীদ মিনারের দিকে মিছিল নিয়ে এগিয়ে যান। এ সময় জাতীয় পেশাজীবী দল তাদের সাথে সংহতি প্রকাশ করেন। মরানববন্ধনের আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সুকোমল বড়ুয়া, বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ড লায়লা নূর ইসলাম সহ জাতীয় পেশাজীবী দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

জেইউ/

এই বিভাগের আরো সংবাদ