চট্টগ্রামে ঢিলেঢালা চলছে হরতাল-অবরোধ

hortal

hortalচট্টগ্রামে অবরোধ চলাকালীন সময়ে হরতাল ডেকেও প্রভাব ফেলতে পারেন নি নগরবাসীর মনে। আজ নগরীতে যানবাহন ও অফিসগামী মানুষের চলাচল যেন স্বাভাবিক দিনের মতোই। সকাল থেকে নগরীতে ঢিলেঢালাভাবে চলছে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা অনির্দিষ্টকালের অবরোধকালীন হরতালের দ্বিতীয় দিন।

জানা যায়, আজ কাজীর দেউড়ি এলাকায় পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল ছুড়া ব্যতীত আর তেমন কোনো ধরণের নাশকতার খবর পাওয়া যায় নি। এদিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানবাহন স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় কম হলেও যানবাহন ছিল চোখে পড়ার মতো। মঙ্গলবার সকাল থেকে নগরীর সড়ক ও মহাসড়কে কোথাও কোনো নাশকতার খবর পাওয়া যায় নি বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মুনজুর মোর্শেদ।

নগরীর কাজীর দেউড়ি এলাকায় শিবিরের ঝটিকা মিছিল থেকে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কেউ আহত হয় নি বলে জানিয়েছেন নগর পুলিশের কোতয়ালী জোনের সহকারি কমিশনার মীর্জা সায়েম মাহমুদ।

এদিকে, চট্টগ্রাম স্টেশন ব্যবস্থাপক সামশুল আলম বলেন, চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে ডাউন ট্রেন সময়মতো না আসায় ট্রেনের শিডিউলে কিছুটা বিপর্যয় ঘটেছে।

চট্টগ্রাম বন্দর সচিব সৈয়দ ফরহাদ উদ্দিন অর্থসূচককে বলেন, আজ চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজে পণ্য উঠা-নামা স্বাভাবিক ছিল। সেই সঙ্গে কিছু ট্রাক পণ্য নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে। বেসরকারি ডিপুগুলোতেও কিছু কন্টেইনার খালাশ হচ্ছে বলে জানা গেছে।

কতোয়ালী থানা জোনের সহকারি কমিশনার মীর্জা সায়েম মাহমুদ বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীর কোথাও কোনো নাশকতার খরব পাওয়া যায় নি। সীতাকুন্ড মহাসড়কে সার্বক্ষণিক পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন আছে। নগরীতে অতিরিক্ত দুই হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রয়োজন হলে আরও ফোর্স মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।