চিনের কয়লা খনিতে এক বছরে মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৪৯ জন

China-coalmine

China-coalmineচিনের কয়লা খনি দূর্ঘটনায় গত এক বছরে প্রায় ১ হাজার ৪৯ জন নিহত হয়েছে। খনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০১২ সালে এই মৃতের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৩৮৪ জন অর্থাৎ গত বছরে মৃতের সংখ্যা কমেছে ২৯ শতাংশ। মঙ্গলবার ভারতের গণমাধ্যম সংস্থা দি টাইমস অব ইণ্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কয়লা ও জ্বালানিতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভোক্তা কোম্পানির দেশ হচ্ছে চিন। তারপরেও মাঝে মাঝে নিরাপত্তা সংকটে পড়ে এসব খনিগুলো্। তখন কতৃপক্ষ কিছু কিছু ছোট অপারেশন বন্ধ করে দিয়ে পরিস্থিতি উন্নয়নের চেষ্টা করে।

চিন সরকারের ওয়েবসাইট সুত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালে খনি দূর্ঘনায নিখোঁজ ও নিহতের সংখ্যা ছিল ১৯৭৩ জন, ২০১২ তে তা নেমে আসে ১৩৮৪ জনে। আর গত বছরে তা আরও কমে ১০৪৯ জনে দাঁড়ায়।

দেশটির প্রশাসন সুত্র জানায়, এর অর্থ কয়লা খনিতে শ্রমিকদের কাজের নিরাপত্তা ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে।

এদিকে কয়লা খনি কর্তৃপক্ষ নিহতের যে ফিগার দেখিয়েছে তা আরও বাড়বে বলে মনে করে চিনের কিছু মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

চিনের সরকারি গণমাধ্যম সংস্থ জিনহুয়া জানিয়েছে, চিনের পশ্চিমাঞ্চলীয় জিনজিয়াং অঞ্চলের বিয়াংগু কয়লা খনি বিস্ফোরণে শুধু ডিসেম্বরেই ২১ থেকে ৩৪ জন শ্রমিক মারা যায়।এছাড়া দক্ষিণাঞ্চলে সিচুয়ান এবং গুইজহাই প্রদেশে এক সঙ্গে দুই খনি দূর্ঘটনায় প্রায় ৪০ জন শ্রমিক মারা গেছে মে মাসে। মার্চে জিলিন কয়লা খনি বিস্ফোরণে মারা গেছে ২৮ জন।

এসআর/