চট্টগ্রামে চারপ্রার্থীর নির্বাচন বর্জন,ব্যালট বাক্স ছিনতাই করতে গিয়ে শিবির কর্মী নিহত

chittogong
চট্টগ্রাম ম্যাপ

chittogong_logoচট্টগ্রাম জেলায় তিন আসনে জাল জোট ও কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে তিন প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করেছে । এদিকে লোহাগাড়া উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলাকালে  একটি ভোটকেন্দ্রে ব্যালট বাক্স ছিনতাই করতে গেলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিতে এক শিবিরকর্মী নিহত হয়।

জানাযায়, চট্টগ্রামের জাল ভোট ও  কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে  পটিয়া আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী  মো. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, সাতকানিয়া আসনের বিএনএফ প্রার্থী জয়নুল আবেদিন কাদের ও  ফটিকছড়ির স্বতন্ত্রপ্রার্থী ড. মাহমুদ হাসান  নির্বাচন বর্জন করেছেন।

এদিকে লোহাগাড়া উপজেলার বড় হাতিয়া ইউনিয়নের ভবানীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে  বেলা পৌনে ৪ টার দিকে জামায়াত-শিবিরের কিছু কর্মী হামলা চালায় । তারা ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেবার চেষ্টা করলে  আইনশৃঙ্খলাবাহিনী সাথে সংঘর্ষ বাদে। এসময়  এনামুল হক নামে এক শিবির কর্মী নিহত হয়।

চট্টগ্রাম-১২(পটিয়া) আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্র্থী মো. সীরাজুল ইসলাম চৌধুরী ২৫ টি কেন্দ্র ঘুরে সেখানে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর তৎপরতা না দেখে সেখানে জাল ভোট দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন। তিনি  সহকারী রিটানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ পত্র জমা দেন।

সাতকানিয়া আসনের বিএনএফ প্রার্থী  জয়নুল আবেদিন কাদের জানান, তার এজেন্ট ও ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া হয়েছে। এমনকি নিরাপত্তা দেওয়া না হওয়ায় তিনি কেন্দ্রে যেতে পারেনি। তাই তিনি নির্বাচন বর্জন করেছেন।

ফটিকছড়ি আসানের স্বতন্ত্রপ্রার্থী ড. মাহমুদ হাসান তার নির্বাচনী এলাকায় তার এজেন্টদের নির্বাচনী এজেন্ট থেকে বের করে দিয়ে অবৈধভাবে ভোট দিতে থাকে আওয়ামী লীগ নেতারা। প্রিজাইডিং অফিসারের সামনে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

সুমন/জিইউ