হিজাব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে

women wearing niqabs or burkas
বোরকা ও হিজাব পরিহিত কয়েকজন নারী।

বোরকা এবং হিজাবের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্ট। গত ২ সপ্তাহ ধরে সিনেটের পাবলিক গ্যালিরিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ছিল বোরকা এবং হিজাব পরিহিতদের জন্য। দেশটির প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবটের আপত্তির পর সোমবার এই নিষেধাজ্ঞা বাতিল করেছে দেশটির পার্লামেন্ট।

women wearing niqabs or burkas
বোরকা ও হিজাব পরিহিত কয়েকজন নারী।

সোবমার সংসদ শুরুর পর মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, মুখ ঢাকা অবস্থায় পার্লামেন্টে প্রবেশে যে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল, তা বাতিল করা হয়েছে। ফলে বোরকা বা হিজাব নিয়ে পাবলিক গ্যালারিতে প্রবেশ করতে পারবেন যে কোনো কেউ।

অস্ট্রেলিয়া সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গত ২ অক্টোবর পার্লামেন্টের বৈঠকে বোরকা ও হিজাব পরিহিতদের পার্লামেন্টের পাবলিক গ্যালারিতে প্রবেশে ২ সপ্তাহের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। এর পরিবর্তে শব্দ নিরোধক কাঁচের বাইরে অর্থাৎ স্কুল ছাত্রদের জন্য বরাদ্দকৃত গ্যালারিতে তাদেরকে বসার অনুমতি দিয়েছিল পার্লামেন্ট। তবে গত ২ সপ্তাহে প্রকৃতপক্ষে এর কোনো সুফল পাওয়া যায়নি।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ডিপার্টমেন্ট অব পার্লামেন্ট সার্ভিসের নিরাপত্তার বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর এবং এটি যথাযথ পদ্ধতিতে সম্পন্ন করা গুরুত্বপূর্ণ।

এক বিবৃতিতে বিরোধীদলীয় আইনপ্রণেতা টনি বার্ক বলেছেন, সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে গত ২ সপ্তাহ পৃথক ২টি পদ্ধতির অনুশীলন করা হয়েছে। আমরা এই পুনরাবৃত্তি চাই না।

অপর আইন প্রণেতা জ্যাকি লাম্বি বলেন, এই নিষেধাজ্ঞায় অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা দুর্বল হিসেবে প্রদর্শিত হয়েছে এবং এটি একটি অমীমাংসিত নিরাপত্ত ব্যবস্থা।

সূত্র: ফক্স নিউজ

এমই/