চট্টগ্রামে নির্বাচনী সরঞ্জামে আগুন, ভোটকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণ

chittagong

chittagongচট্টগ্রাম জেলায় জামায়াত-শিবির নিয়ন্ত্রিত সাতকানিয়ায় নির্বাচনী সরঞ্জাম বোঝাই দুটি পিকআপে আগুন দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা।  এ সময় পুলিশের রাইফেল ছিনতাই এবং সীতাকুন্ডে ভোটকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার  বিকেল ৪টার দিকে নির্বাচনী সরঞ্জাম বোঝাই দুটি পিকআপ (ছোট ট্রাক) সাতকানিয়া উপজেলার ছদাহা ও এওছিয়া ইউনিয়ন এলাকায় পৌঁছালে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। এতে তিন পুলিশ আহতসহ তাদের রাইফেল ছিনিয়ে নেওয়া হয়।

এদিকে, সীতাকুন্ডের ভাটিয়ালীর তুলাতলী এলাকায় একটি ভোটকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে দুবৃর্ত্তরা। ভোটকেন্দ্রে যাতে ভোটাররা ভোট দিতে না আসে এমন আতংক ছড়িয়ে দিতে এমনটি করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সাতকানিয়া থানার ওসি খালেদ হোসেন জানিয়েছেন, নির্বাচনী সরঞ্জাম বোঝাই দুটি পিকআপ পুলিশ পাহারা থাকলেও দুর্বৃত্তদের হামলায় পুলিশ সদস্যরা পিছু হটতে বাধ্য হয়।

তিনি বলেন, সাতকানিয়া উপজেলার সদর থেকে পুলিশ পাহারায় বস্তাভর্তি ব্যালট পেপার ও ব্যালট বাক্স পিকআপে করে নিয়ে যাওয়ার সময় ছদাহা ইউনিয়নের ফকিরহাট এলাকায় এবং কেওচিয়া ইউনিয়নের চূড়ামণি এলাকায় আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ সময় তাদের আক্রমণে তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়। এবং তাদের সাথে থাকা রাইফেল ছিনিয়ে নেয় দুর্বৃত্তরা।

চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার এ কে হাফিজ আক্তার জানান, নির্বাচনী সরঞ্জমবোঝাই দুটি পিকআপ সাতকানিয়ার বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার সময় পথে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। তবে ঘটনার পর অতিরিক্ত নিরাপত্তার স্বার্থে দুটি ইউনিয়নের বাড়তি নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। বিজিবি ও পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।