মবিল কিনলে মোবাইল রিচার্জ ফ্রি
বৃহস্পতিবার, ১০ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » অটোমোবাইল

মবিল কিনলে মোবাইল রিচার্জ ফ্রি

Mobil_1

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর সেভেন এনহিল হোটেলে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে এমজেএল বাংলাদেশ লিমিটেড। ছবি তুলেছেন খালেদুল কবির নয়ন

‘মবিল স্পেশাল যতবার-মোবাইল রিচার্জ ততবার’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে বিশেষ টকটাইম সুবিধা চালু করেছে এমজেএল বাংলাদেশ লিমিটেড। এখন মবিল স্পেশালের ৪ অথবা ৫ লিটারের ক্যান কিনলেই ক্রেতারা পাবেন সর্বোচ্চ ২০০ টাকা পর্যন্ত মোবাইল টক টাইম।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর সেভেন এনহিল হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অফারের ঘোষণা দেন কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মোহাম্মদ সানাইল হক।

তিনি বলেন, অফারটি পেতে ক্রেতাদের ক্যানের গায়ে স্টিকারের কালো অংশ ঘষে ১৬ অংকের কোডটি ‘৩৬৯০’ নম্বরে যে কোনো মোবাইল অপারেটর থেকে এসএমএস করতে হবে। এরপর তিনি পাবেন নিশ্চিতকরণ এসএমএস। কোডটি সঠিকভাবে যাচাই হওয়ার পরেই সেই নম্বরে ৫০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২০০ টাকা পর্যন্ত টক টাইম রিচার্জ পেয়ে যাবেন। তবে ৪ লিটারের ক্যানে ৪০ টাকা ও ৫ লিটারের ক্যানে দর বাড়ানো হয়েছে ৫০ টাকা। অফারটি চলবে চলতি আগামী ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত।

খন্দকার মোহম্মদ সানাইল হক বলেন, ‘মবিল স্পেশালের সর্বজন গ্রহণযোগ্যতা ও বিপুল জনপ্রিয়তার কথা চিন্তা করেই আমরা এর ৪ ও ৫ লিটার ক্যানের মাধ্যমে ভোক্তা সাধারণকে পুরস্কার হিসেবে এই টকটাইম অফার দিতে চাই’। এটা আমাদের প্রথম পদক্ষেপ। সাফল্য পেলে আমরা আরও বড় কোনো কর্মসূচি হাতে নেব।

কোম্পানির নির্বাহী পরিচালক এম মুকুল হোসেন বলেন, ‘ক্রেতা স্বার্থ রক্ষার্থে আমরা আমাদের কিছু পণ্যে সিকিউরিটি সিল যুক্ত করে তাদের সচেতন করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। নকল রোধক প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমেরিকান সিকিউরিটি সিল প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান থ্রিএম এই সিকিউরিটি সিলটি তৈরি করেছে, যা নকল করা সম্ভব নয়।’

সংবাদ সম্মেলনে কোম্পানির প্রধান বিপণন কর্মকর্তা মো. আহসান কবির বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এ ধরনের আয়োজন থাকলেও বাংলাদেশে এটাই প্রথম। ভোক্তাদের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এ পথ চলা। ভোক্তারা যাতে পণ্য কিনতে নিরাপত্তা পান সেই নিশ্চয়তা আমরা দিতে চাই। ভোক্তাদের সঙ্গে প্রতিষ্ঠানের যোগাযোগের জন্য এই অফার দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এসইউএম/এসএম

এই বিভাগের আরো সংবাদ