বাড়তি ঋণ সমন্বয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোও সময় পেল

Share Taka
Share Taka

Share_Taka_2ব্যাংকের পর এবার আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্যও একক গ্রাহক ঋণসীমার সময় বাড়ানো হয়েছে। পুঁজিবাজার স্থিতিশীলতার লক্ষ্যে এ সময়সীমা আগামি ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে ব্যাংক বহির্ভূত-আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠান তথা মার্চেন্ট ব্যাংক ও ব্রোকারহাউজকে দেওয়া সীমার অতিরিক্ত ঋণ সমন্বয়ে বাড়তি সময় পেল।

বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে এ সম্পর্কিত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এর আগে গত ৩০ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ব্যাংকগুলোর একক গ্রাহক ঋণ সীমার সময় বাড়ানো হয়।

পুঁজিবাজারের অব্যাহত দরপতনের মুখে গত ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১১ সালে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে এ সময় বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ করা হয়েছিল। বুধবার প্রজ্ঞাপনের ফলে এ সময় আবারো এক বছর বাড়ানো হলো।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে,আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক মার্চেন্ট ব্যাংকিং ও ব্রোকারেজ কার্যক্রম পরিচালনার উদ্দেশ্যে গঠিত কেবল নিজস্ব সাবসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে প্রদত্ত একক গ্রাহক ঋণসীমার সময় ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ পর্যন্ত বাড়ানো হলো।