বিধি লংঘন করলে ২ থেকে ৭ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড : ইসি

EC

ECগণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২ এর ৭৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী এই আদেশ জারি করা হয়। উল্লেখিত সময়ের মধ্যে কোন হিংস্রতামূলক কাজ,  বিশৃংখল আচরণ, ভোটার বা নির্বাচনী কার্যে নিয়োজিত কোন ব্যক্তিকে ভয়ভীতি বা অস্ত্র প্রদশন করা যাবে না। এ বিধি লংঘন করলে কমপক্ষে ২বছর এবং অনধিক সাত বছর সশ্রম কারাদন্ড এবং অর্থদন্ডও দন্ডীত করা হবে।

বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের জনসংযোগ পরিচালক আসাদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আদেশ জারি করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে,  আগামি ৪ জানুয়ারি ২০১৪ মধ্যরাত হতে ৫ জানুয়ারি ২০১৪ পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় ট্যাক্সি ক্যাব, বেবিট্যাক্সি/অটোরিক্সা, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, কার, বাস, ট্রাক, টেম্পো, লঞ্চ, ইজিবাইক, ইঞ্জিনবোট, স্পিডবোটসমূহের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে। মহানগর এলাকায় ট্যাক্সিক্যাব, মাইক্রোবাস, পিকআপ ও জিপ চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

তবে ৩ জানুয়ারি হতে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মোটর সাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে। নির্বাচনে প্রার্থী, আইন শৃংখলা রক্ষাবাহিনী, প্রশাসন, অনুমতিপ্রাপ্ত নির্বাচনী পর্যবেক্ষক ও নির্বাচনী এজেন্টদের জন্য এ আদেশ প্রযোজ্য নয়। এ ক্ষেত্রে পর্যবেক্ষ, সাংবাদিক ও পোলিং এজেন্টদের যানবাহনে নির্বাচন কমিশন প্রদত্ত স্টিকার ব্যবহার করতে হবে।

শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা করা যাবে না। এছাড়া কোনো ধরনের সভা সমাবেশ ও বিজয় মিছিলও করা যাবে না।

কবির/