খালেদা তত্ত্বাবধায়কের জন্য নয়, যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে আন্দোলন করছেন : তথ্যমন্ত্রী

enuতথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন ম্যাডাম খালেদা জিয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য নয়, যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে আন্দোলন করছেন। তিনি তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থার কোন রুপরেখা বা কঠামোই দেননি। তিনি যদি সত্যিকার দেশপ্রেমিক হতেন তাহলে যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষ নিতেন না। ম্যাডাম খালেদা জিয়া গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। তিনি এ যুদ্ধ ঘোষণা করে তার গণতান্ত্রিক সদস্যপদ হারিয়েছেন। দেশে একটি গণতান্ত্রিক সরকার আছে, সাংবিধানিকভাবে গণতান্ত্রিক উপায়ে ৫ জানুয়ারির  নির্বাচন ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি সেই গণতান্ত্রিক নির্বাচনে ট্রেনে না চড়ে দেশ ও দেশের মাটি মানুষের বিরুদ্ধে গিয়ে পাকিস্তানের ট্রেনে চড়েছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর হাইস্কুল মাঠে বুধবার বিকালে ১৪ দলের নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।এ সময় তিনি জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস, যুদ্ধাপরাধের কলংকমুক্ত, আত্মনির্ভর ও উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ (নবীনগর) আসনে ১৪ দলের মনোনিত প্রার্থী ফয়জুর রহমান বাদলকে নির্বাচিত করার আহবান জানান।

জনসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী ক্যাপটেন (অব.) এবি তাজুল ইসলাম এমপি। উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক আবদুর রউফের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শাহ জিকরুল আহমেদ খোকন, ১৪ দলের প্রার্থী ফয়জুর রহমান বাদল, উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হক সরকার, এম হালিম, এমএ হালিম, নিয়াজ মোহাম্মদ খান, আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল আমীন, হাবিবুর রহমান, মিয়া মো. হামিদ আজম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য আলামিনুল হক প্রমুখ। স্থানীয় প্রতিটি ইউনিয়নে হাজারো নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন । পরে তথ্যমন্ত্রী নবীনগর উপজেলার শিবপুর হাইস্কুল মাঠে স্থানীয় ১৪ দলের আয়োজিত আরেকটি নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেন।

সাকি/